মতামত

abrham-lrg-220170411030907

শাকিব-অপুর ডিভোর্স নিয়ে যা বললেন তসলিমা নাসরিন

শাকিব-অপুর ডিভোর্স নিয়ে যা বললেন তসলিমা নাসরিন

টিবিটি রিপোর্ট: ঢাকাই চলচ্চিত্রের অন্যতম জয়প্রিয় জুটি ছিলেন শাকিব-অপু। কিন্তু বেশ অনেকদিন ধরেই চলছিল তাদের সম্পর্কের টানাপোড়ন। যা শেষে গিয়ে রুপ নেয় ডিভোর্সে। সম্প্রতি এ বিষয়ে নিজের ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন তসলিমা নাসরিন। বিডি২৪লাইভ ডট কমের পাঠকদের জন্য তা হুবুহু তুলে ধরা হল- বাংলাদেশের ছবির হিরো শাকিব তালাক দিচ্ছে বাংলাদেশের ছবির হিরোইন অপু বিশ্বাসকে। অপুর

om-L

পালিয়ে বিয়ে করার কথা ভাবছেন? বিষয় গুলো জানুন

টিবিটি মতামত: অনেকের পরিবারই ভালোবাসাকে মেনে নেয়, সেক্ষেত্রে তারা ভালোবাসার বিয়েকেও মানতে নারাজ। এমন অনেক পরিবারের সন্তানেরা পালিয়ে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন। তবে পালিয়ে বিয়ে করে অনেকেই কিন্তু ভালো থাকেনা । কারণ বিয়ের সিদ্ধান্ত নিলেই তো আর সমাধান নয়, একে-অপরের বিয়ে করে থাকারও একটি বিষয় আছে। সবার মন-মানষিকতা একরকম নয়। তাই সবাই ম্যানেজ করার ক্ষমতাও

hqdefault

কেন তিমি মাছের বমির দাম ১৭ কোটি টাকা, কি আছে এতে?

টিবিটি মতামত: কেন তিমি মাছের বমির দাম ১৭ কোটি টাকা কি আছে এতে- কেন তিমি মাছের বমির দাম ১৭ কোটি টাকা – খুশি হওয়ার কত কারণই না থাকে মানুষের। বৈশাখ মাসে কেউ পথচলতি একখানা আম কুড়িয়ে পেলে খুশি হয়, আবার পেয়ারা গাছের নীচ দিয়ে যাওয়ার সময়ে যদি হঠাৎ একটা ডাঁসা পেয়ারা পড়ে থাকতে নজরে আসে,

methodetimesprodwebbinb76ba4ba-b01c-11e6-8513-587a14457823

সেলফি যেন ‘কিলফি’ না হয়

ভারতের কর্ণাটক রাজ্যে কর্তৃপক্ষ সেলফি তোলার বিপদের ব্যাপারে লোকজনকে সতর্ক করতে এক প্রচারাভিযান চালাচ্ছে। সম্প্রতি সেলফি তুলতে গিয়ে চারজন ছাত্রের মৃত্যুর পর তারা এই উদ্যোগ নিয়েছেন। সেপ্টেম্বর মাসে ২০-২৫ জন কলেজ ছাত্র বেঙ্গালুরু শহরের ৩০ কিলোমিটার দূরের রামাগোন্ডলুতে একটি হনুমান মন্দিরে বেড়াতে যায়। সেদিন দুপুরে তারা মন্দিরের পুকুরে স্নান করতে নামে। “তারা সেখানে আনন্দ-উল্লাস করছিল, সেলফি তুলছিল”

cancer-cells

শরীরে ক্যানসার প্রতিরোধ করবে যে প্রোটিন 

টিবিটি মতামত:  সাম্প্রতিক এক গবেষণায় এক ধরনের প্রোটিন আবিষ্কৃত হয়েছে। জানা গেছে, আবিষ্কৃত ওই প্রোটিন সারা শরীরে ক্যানসার ছড়িয়ে পড়া প্রতিরোধ করতে সক্ষম। ওন্টারিওর গুয়েলফ ইউনিভার্সিটির গবেষকরা এ গবেষণাটি করেছেন। তারা জানান, ক্যাধেরিন-২২ নামের ওই প্রোটিন শরীরে ক্যানসার ছড়িয়ে পড়া প্রতিরোধ করে। বিশেষত স্তন ও মস্তিষ্কের ক্যানসার সারা শরীরে ছড়িয়ে পড়ার হার কমাতে সাহায্য করে

p_k_9903wb (768 x 430)

অচল ঢাকা সচল হতে পারে যেভাবে

টিবিটি মতামত: যানজট নিরসনের ওপর একটি দায়িত্বশীল সরকারের জনপ্রিয়তা অনেকটাই নির্ভরশীল। সরকারের তা অজানা নয়। উন্নয়নের জন্যও যানজট নিরসন অপরিহার্য। বিশ্বব্যাংক এক হিসাবে জানিয়েছে, প্রতিদিন যানজটের কারণে ঢাকা মহানগরে ৩২ লাখ কর্মঘণ্টা নষ্ট হচ্ছে, যার অর্থমূল্য ১১.৪ বিলিয়ন ডলার পত্রিকার পাতা ওল্টালে, সোশ্যাল মিডিয়া তথা ফেসবুক খুললে দেশের দুইটি কমন খবর আপনার চোখের সামনে থাকবে।

arghya-biswas-2060138787

‘বাংলাদেশকে’ চিঠি লিখে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের ‘আত্মহত্যা’

টিবিটি রিপোর্টঃ গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী ‘আত্মহত্যা’ করেছেন। এর আগে তিনি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন। তাতে তিনি বিভিন্ন বিষয় নিয়ে লিখেছেন। ‘প্রিয় বাংলাদেশ’ সম্বোধন করে চিঠি আকারে লেখা ওই স্ট্যাটাসের শেষে নিজেকে তিনি ‘যুক্তিবাদী বেয়াদব’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন। ১৪ নভেম্বর মঙ্গলবার ভোরে (সোমবার দিবাগত রাত) আত্মহননের

TASLIMA

যে কারণে ঢাকা মেডিকেলের চাকরি ছেড়েছিলেন তসলিমা নাসরিন

টিবিটি রিপোর্টঃ তসলিমা নাসরিন’কে সবাই লেখিকা হিসেবে চিনলেও পেশাগত জীবনে তিনি একজন চিকিৎসক। তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের মেডিকেল অফিসারের (ইনডোর) দায়িত্ব পালন করেছেন। তবে ১৯৯৩ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি চাকরি থেকে ইস্তফা নেন তিনি। সম্প্রতি কী কারণে তিনি পদত্যাগ করেছিলেন। আর কী বা ছিল তার ওই পদত্যাগপত্রে এ নিয়ে প্রায় দুই যুগ পর মুখ

52b71834d0fca554f63dad2af9750a21-577d8c5806b7a

জঙ্গিদের টার্গেট রাষ্ট্র

টিবিটি জাতীয়: জঙ্গিবাদ এখন কোন রাষ্ট্রের একক কোনো সমস্যা নয়। সারা বিশ্বেই আজ জঙ্গিবাদ একটি প্রধান সমস্যা। ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে পরাজিত শক্তি পাকিস্তানিদের এদেশীয় দোসর রাজাকার-আলবদর-আলশামস বাহিনীর সমর্থকরাই যে এ সময়ের জঙ্গি সংগঠনগুলোর নেপথ্য পৃষ্ঠপোষক ও খলনায়ক- বিষয়টি আজ পরিস্কার। আজ ১৪ নভেম্বর। ২০০৫ সালের এই দিনে বাংলাদেশের বিচারাঙ্গন থেকে চিরদিনের জন্য সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল দুটি

TASLIMA_

বাংলাদেশ কি হিন্দুদের বাসবাসের অযোগ্য: তসলিমা নাসরিন

টিবিটি মতামত: একটি সাদা শাড়ি পরা বৃদ্ধা কাঁদছেন। পেছনে বাড়ি ঘর পুড়ছে। ফেসবুকে ছবিটা দেখে আমি ভেবেছিলাম রোহিঙ্গাদের বাড়িঘর পোড়ানোর দৃশ্য, বাড়ি ঘর পুড়িয়ে দিয়েছে মিয়ানমারের সেনারা, আর অসহায় রোহিঙ্গা বৃদ্ধা সহায় সম্পত্তি সব হারিয়ে কাঁদছেন। এরকমই ভাবতাম, যদি ছবির নিচের লেখাটা না পড়তাম। লেখা ছিল এটি বাংলাদেশের রংপুরের ঘটনা। ১০ হাজার মুসলমান হিন্দুদের ওপর

6850785184_c0e02d54c4_b

যন্ত্রনায় কাতরাচ্ছিললাম, লজ্জায় চিৎকার করতে পারিনি: জবি ছাত্রী

রাশিদুল হাসান, জবি প্রতিবেদক। “গাড়িটি গুলিস্তান পৌছা মাত্র মাজারের সামনে হটাৎ হার্টব্রেক করলো, সঙ্গে সঙ্গে কয়েকজন হুমড়ি খেয়ে পড়ল আমার গায়ের ওপর, তীব্র আঘাতে চোখের জল গড়িয়ে পড়ছিল, কাঁদতে পারিনি লজ্জায়,আভিমানী কণ্ঠে জানালেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের( জবি) একজন মেয়ে শিক্ষার্থী, তিনি অণির্বান বাসে মিরপুর থেকে জবিতে আসা-যাওয়া করেন। গাড়িতে উঠতে গিয়ে দেখি পা ফেলার জো নেই,

familyplayingoutside

শিশুর শারীরিক বৃদ্ধির সাথে মানসিক বিকাশে যা করণীয়

শিশুর শারীরিক বৃদ্ধির সাথে মানসিক বিকাশে কি করণীয়, সে বিষয়ে পরিবারের জানা প্রয়োজন। রাজধানীর আদাবর এলাকায় একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে হিসাব কর্মকর্তা পদে কর্মরত আতিকুর রহমান আতিক। তাদের দু’টি কন্যা সন্তান। বড়টি তমা (৫), আর ছোটটি প্রিয়া (৩)। তিনি আর তার স্ত্রী লিনা তাদের সন্তানদের সময় দেন বন্ধুর মত। মেয়েদেরকে পড়ালেখায়, খেলাখুলায়, বিনোদনে, স্বাস্থ্যসেবায়, পুষ্টিসমৃদ্ধ খাদ্য

11807579_10153507374317188_5238704036981556843_o

তালাশের পাঁচ বছর পূর্তি এবং ষষ্ঠ বছরে পথ চলা শুরু

৯ ডিসেম্বের। অদ্ভুতভাবে অনেক কিছু মিলে যাচ্ছে এই দিনটিতে। ২০১১ সালের এই দিনেই ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের পর্দায় যাত্রা শুরু করে তালাশ। কাকতালীয়ভাবে ২০১৬ সালের ৯ ডিসেম্বরে আবার তালাশ প্রচারের দিন আসলো। তালাশের প্রথম পর্বের বিষয় ছিল ‘ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা’। আজ ৫ বছর পুর্তি তালাশের। এবারের পর্ব সংখ্যা ১১১। এবারের বিষয়ও ‘ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা’। এই ৫ বছরে এমন কোন

farok

রিপোর্টারের চোখে সেন্টমার্টিন

ক’দিন আগে ঘুরতে গিয়েছিলাম বাংলাদেশের একমাত্র প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিন । আমরা নিয়মিত দেশী,বিদেশী হাজার পর্যটক ভিড় করি এই দ্বীপে। উপভোগ করি দ্বীপের সৌন্দর্য। এই দ্বীপের সৌন্দর্য উপভোগের বাইরে আমরা কি কখনো খোজঁ নিয়েছি এই দ্বীপের মানুষ গুলোর? কেমন তাদের জীবন,কেমন তাদের জীবন ব্যবস্থা? একজন রিপোর্টার হিসেবে আমার চোখ ফাঁকি দিতে পারেনি তাদের জীবন ব্যবস্থা। রিপোর্টারের চোখ নিয়ে

peace-sign-together

নোবেল শান্তি বিজয়ীদের শান্তির দৌড়!!

২০০৬ সালে শান্তিতে নোবেলজয়ী একমাত্র বাংলাদেশী ডঃ মুহাম্মদ ইউনুস। নোবেলজয়ের পরে তিনি রাজনীতিতে নামতে চেয়েছিলেন। দেশবাসী চাননি বলে তিনি আর পা বাড়াননি এই পথে। কথা হলো, রাজনৈতিক দল গঠন না করে কি দেশ গঠনে শরিক হওয়া যায় না ? ডঃ ইউনুস কি পারেন না নাসরিননগর বা নাসরিননগরে ভুক্তভোগী গৃহহীনদের আবাস গড়ে দিতে! ওদেরকে ঘর বাড়ি

shishu-400x280

বাংলাদেশে নারী ও শিশুর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে চ্যালেঞ্জ ও সুপারিশ

জীববিজ্ঞানের ভাষায় – মনুষ্য সন্তানেরজন্ম এবং বয়ঃসন্ধির মধ্যবর্তী পর্যায়ের রূপ হচ্ছে শিশু। চিকিৎসাশাস্ত্রের সংজ্ঞানুযায়ী মায়ের মাতৃগর্ভেভ্রুণ আকারে অ-ভূমিষ্ঠ সন্তানই শিশু।দারিদ্র-পীড়িত বাংলাদেশে অপুষ্টি স্বাস্থ্য খাতেব্যাপকভাবে প্রভাব বিস্তার করেছে। অপুষ্টিজনিত কারণে বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ প্রজন্ম হিসেবে পরিচিত শিশুরা বিশ্ব ব্যাংকের জরীপে বিশ্বে শীর্ষস্থান দখল করেছে যা মোটেই কাঙ্খিত নয়। মোট জনগোষ্ঠীর ২৬% অপুষ্টিতে ভুগছে।৪৬% শিশু মাঝারী থেকে গভীরতর পর্যায়ে ওজনজনিত সমস্যায় ভুগছে।৫ বছর বয়সের পূর্বেই ৪৩% শিশু মারা যায়। প্রতি পাঁচ শিশুর একজন ভিটামিন এ এবং প্রতি দু’জনের একজন রক্তস্বল্পতাজনিত রোগে ভুগছে।বৈবাহিক জীবনে

Rakibul
মধ্যপ্রাচ্যের ভূরাজনীতি, জঙ্গীবাদ ও গৃহযুদ্ধে রাশিয়া ও মার্কিন নেতৃত্বাধীন পশ্চিমা জোটের ভূমিকা ও আগামীর বিশ্বের ভবিষ্যৎ নিয়ে কথা বলেছেন তরুণ কলামিষ্ট রকিবুল হাসান।আপনি কি ভাবছেন?

নূতন বিশ্বব্যবস্থার হাতছানি, আমেরিকার শেষ, রাশিয়ার শুরু: রকিবুল হাসান

টিবিটি সম্পাদকীয়:  দীর্ঘ দিনের রিজার্ভ বেঞ্চের ছায়ারাজনীতি ছেড়ে দিয়ে রাশিয়া এবার মধ্যপ্রাচ্যের ভূরাজনৈতিক খেলার ঠিক কেন্দ্রস্থলে, মুখ্য খেলোয়ারের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছে।সিরীয় গৃহযুদ্ধে পশ্চিমাদের অপরিনামদর্শী রনকৌশলের দরুন ও রাশিয়ার হিসাব কষা পদক্ষেপে গোটা পশ্চিমা দুনিয়া বেশ বড়সর একটা ঝাকি খেয়েছে, বলা যায় নব্বই’র শীতলযুদ্ধের পরে সর্বোচ্চ মাত্রার।ভূরাজনৈতিক নৈকট্য, প্রাকৃতিক সম্পদ ও রাজনৈতিক অস্থিরতার জন্য মধ্যপ্রাচ্য দীর্ঘদিন

probas-amin

‘এতদিনে আল্লাহ মুখ তুলে তাকিয়েছেন’

প্রভাষ আমিন: ফেসবুকে আমি যাদের স্ট্যাটাস মনোযোগ দিয়ে ফলো করি, তাদের মধ্যে একদম শুরুর দিকে আছেন মঈনুল আহসান সাবের। ফেসবুকে তার স্যাটায়ারের কোনো তুলনা নেই। তবে সাবের ভাই শুধু ফেসবুকের কারণেই আমার প্রিয় নয়, ফেসবুকে তার অ্যাকাউন্ট না থাকলেও তিনি আমার প্রিয়র তালিকায় থাকতেন। সেই কলেজ জীবন থেকে সাবের ভাইয়ের গল্প-উপন্যাস পড়ে আসছি। তিনি আমার

shakil

ছায়ানট ও বঙ্গবন্ধু পরিবার

মাহবুবুল হক শাকিল: বাঙালি জাতিকে বিজাতীয়করণের যে ধারা আয়ুব-মোনেমের শাসনামলে তোড়ে-জোরে শুরু হয়েছিল তার বিরুদ্ধে বাঙালি সংস্কৃতির প্রতিরোধের দুর্গ হিসাবে ষাটের দশকে গড়ে উঠে ছায়ানট। কবি সুফিয়া কামালের হাতেই ছায়ানটের প্রতিষ্ঠা। তার সাথে ছিলেন ওয়াহিদুল হক আর সনজিদা খাতুনের মতো কয়েকজন রবীন্দ্রমনস্ক মানুষ। কবি সুফিয়া কামাল ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নিকট প্রতিবেশী। শুধু প্রতিবেশী

Rakib
ইতিহাস ও কিছু রাজনৈতিক জটিলতা

জাতিসংঘে প্রথম নারী মহাসচিব!

রকিবুল হাসান: নিউজিল্যান্ডের সাবেক প্রধানমন্ত্রী হেলেন ক্লার্ক জাতিসংঘের পরবর্তী মহাসচিব পদে নির্বাচনে লড়ার ঘোষণা দিয়েছেন। গত সোমবার দেশটির বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জ়নকী তাকে এ পদে মনোনয়ন দেন। গত ৭০ বছরের নারী নেতৃত্বের শূন্যতা ঘোঁচাতে এই কিউই নারী কূটনীতিকই হয়ত বান-কি-মুনের স্থলাভিষিক্ত হতে যাচ্ছেন। বান কি মুন ২০১৬ সালের শেষের দিকে তার দ্বিতীয় মেয়াদ শেষ করতে যাচ্ছেন।

istiyak-reza_107284

এতো রক্ত কেন?

সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা: ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের সব ধাপ পার হয়নি, এরই মধ্যে অনেক মৃত্যু ঘটেছে। সোহাগী জাহান তনুর হত্যা নিয়ে যখন সরব আন্দোলন আর আলোচনা, তখন এরই মধ্যে ঘটেছে পুরোনো ঢাকায় দুটি চাঞ্চল্যকর হত্যাকান্ড। ইসলামপুরের মসজিদের মোয়াজ্জিয়ানের হত্যাকান্ড হারিয়ে গেছে অনলাইন লেখক নাজিমুদ্দিন সামাদের নির্মম হত্যাকান্ডের মাঝে। আমাদের আইন শৃখলা বাহিনী ভুল গেছে প্রকাশ দীপন

probas-amin_108347

দুই মন্ত্রীর মন্ত্রিত্ব: বেআইনি নয়, অনৈতিক

প্রভাষ আমিন: নজিরবিহীন শব্দের অনেক প্রয়োগ-অপপ্রয়োগ আমরা করি। তবে দুই মন্ত্রীকে আদালত অবমাননার অভিযোগে অভিযুক্ত করে শাস্তি দেওয়ার ঘটনা সত্যি নজিরবিহীন। বাংলাদেশে এর আগে এমন ঘটনা ঘটেনি। আদালত অবমাননার দায়ে অভিযুক্ত খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম এবং মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হককে ৭ দিনের মধ্যে ইসলামিয়া চক্ষু হাসপাতাল এবং লিভার ফাউন্ডেশনে ৫০ হাজার টাকা

istiyak-reza_107976

আলাদা আদালত, দ্রুত বিচার, কড়া শাস্তি

সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা: এ মুহূর্তে কুমিল্লায় নিহত সোহাগী জাহান তনুর বাবা মায়ের মতো নির্যাতিত মানুষ কি আর আছে? তারা তাদের আদরের কন্যা হারিয়েছেন, আবার তাদেরই বারবার তুলে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে র্যাব, পুলিশ এবং সিআইডি। হয়তো আইনি প্রক্রিয়ায় তদন্তের ধরণটিই এমন। যেতে হয়, তুলে নিতে হয় বারবার। কিন্তু এমন প্রক্রিয়ায় স্বজন হারানো পরিবারটির মানসিক অবস্থা কেমন

tushar_107353

তনু, আমরা লজ্জিত, আমরা অপরাধী

তুষার আবদুল্লাহ: আমি কি দায়মুক্তির জন্য লিখছি, নিজেকে নিজের প্রবোধ দেওয়া? অন্তত সোহাগী জাহান তনুকে নিয়ে কিছু একটা লিখেছি, এতটুকু দাবি নিয়ে দায় এড়ানোর চেষ্টা? আমার কাছে ব্যক্তিগতভাবে কোনো উত্তর নেই। মনে হচ্ছে যেই উত্তরই খুঁজে পাই না কেন তা হবে আত্মপ্রতারণা। অন্তত গণমাধ্যমের কর্মী হিসেবে আমার কাছে তাই মনে হয়। তনুর ঘটনাটি আমি প্রথম

istiyak-reza_107284

নারী: একমাত্র সর্বহারা শ্রেণি?

সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা: স্লোগানে কম্পিত ছোট্ট কুমিল্লা শহর। বিক্ষোভ দেশজুড়ে। নারী পুরুষ, ছাত্র-ছাত্রী সবাই আজ উচ্চকণ্ঠে তনু হত্যার বিচার চায়। সংস্কৃতিমনা নিতান্ত সাধারণ পরিবারের এই মেয়েটিকে হত্যা করা হয়েছে কুমিল্লা সেনানিবাসের ভেতরে। হত্যার বিচার হয় না, নারী হলে যেন আরো হয় না। কত ধর্ষণ, কত শ্লীলতাহানির ঘটনা, সবই শেষ পর্যন্ত বিচারহীন থাকে। কথা, আলোচনা, ক্ষোভ,

Top