মুক্তিপণ না পেয়ে মাদ্রাসাছাত্রকে হত্যা

jhenaidah

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলা থেকে দুই দিন আগে নিখোঁজ এক মাদ্রাসাছাত্রের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পুলিশ বলছে, অপহরণের পর মুক্তিপণ না পেয়ে শিশুটিকে হত্যা করা হয়েছে।
নিহত মিরাজ উদ্দীন (১২) কোটচাঁদপুর উপজেলার ভোমরাডাঙ্গা গ্রামের মহর আলীর ছেলে। সে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার বুজরুকগড়গড়ি দারুল উমুল মাদ্রাসার তৃতীয় শ্রেণিতে পড়তো।
সোমবার দুপুরে মিরাজের লাশ ভোমরাডাঙ্গা গ্রামের একটি ভুট্টাক্ষেত থেকে উদ্ধার করে পুলিশ।
কোটচাঁদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইদুল ইসলাম শাহিন জানান, শনিবার রাতে বাড়ির পাশের একটি ওয়াজ মাহফিল থেকে বাড়ি ফেরার সময় মিরাজকে অপহরণ করে দুর্বৃত্তরা। অপহরণের পর রাতেই তার বাবার কাছে মোবাইলে এক লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। এ বিষয়ে রোববার মিরাজের বাবা কোটচাঁদপুর থানায় একটি মামলা করেন।
তিনি জানান, এরপর সোমবার সকালে ভুট্টাক্ষেতে মিরাজের খণ্ডিত মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয় এলাকাবাসী। পরে দুপুরে তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায় পুলিশ। দুর্বৃত্তরা অন্য কোথাও মিরাজকে গলাকেটে হত্যার পর ভোমরাডাঙ্গা গ্রামের ভুট্টাক্ষেতে ফেলে রেখে যায় বলে ধারণা করছে পুলিশ।


*

*

Top