ভোলায় ১৯ জেলের জেল ও জরিমানা

4692

টিবিটি সারাদেশ:  জেলায় সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মা ইলিশ শিকারের দায়ে ১৯ জেলের জেল ও জরিমানা করা হয়েছে। এদের মধ্যে ১৪ জনের জেল ও ৫ জনের অর্থদন্ড হয়েছে। জেলার সদর, চরফ্যাসন ও বোরহানউদ্দিন উপজেলার মেঘনা ও তেতুলিয়া নদী থেকে থেকে আজ বুধবার ভোর রাতে এদের আটক করা হয়। পরে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা ও অর্থদন্ড দেয়া হয়। সদর উপজেলার সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মো: আসাদুজ্জামান বলেন, ভোরে সদরের মেঘনার ভাংতির খাল, ইলিশা এলাকা ও তেঁতুলিয়া নদী থেকে মোট ১৩ জেলেকে আটক করা হয়। এদের মধ্যে নির্বাহী মেজিস্ট্রেট মো: আব্দুল মান্নান ৪ জনকে ১ বছরের জেল ও ১জনকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা ধার্য করেন। অপর ৮জনকে আজ দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মৃধা মো: মুজাহিদুল ইসলামের আদালতে নেয়া হলে প্রত্যেককে ১ মাসের জেল দেওয়া হয়।

বোরহানউদ্দিন মৎস্য কর্মকর্তা নাজমুল সালেহিন বাসস’কে জানান, মধ্য রাতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: আব্দুল কুদ্দুসের নেতৃত্বে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। এসময় তেতুলিয়া নদী থেকে ২ জেলেকে আটক করা হয়। সকালে ইউএনও ২ জেলেকে ২ বছর কেরে জেল দেন। চরফ্যাসন উপজেলা মৎস্য অফিসার পলাশ হালদার বলেন, রাতে উপজেলার ঢালচর থেকে ৫ জেলেকে আটক করা হয়। এদের মধ্যে ৪জনকে সহকারী কমিশনার (ভূমি) আমিনুল ইসলাম ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা করেন এবং অন্যজনকে খালাস দেন। জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো: রেজাউল করিম বাসস’কে বলেন, এই মা ইলিশ থেকেই আগামী দিনে নতুন ইলিশ জন্ম নিবে। একে রক্ষা করার দায়িত্ব আমাদের সকলের। তাই মা ইলিশ রক্ষায় জেলার ৭ উপজেলায় নিরবিচ্ছিন্ন অভিযান চলছে। মৎস্য অধিদপ্তরের বিভিন্ন অভিযানে স্থানীয় প্রশাসন, কোষ্টগার্ড ও পুলিশ সহায়তা করছে। আইনভঙ্গকারী কাউকে ছাড় দেয়া হবেনা বলে জানান তিনি। বাসস


*

*

Top