ভোলায় বাল্য বিবাহের হাত থেকে রক্ষা পেল দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থী

627

টিবিটি সারাদেশ: জেলার সদর উপজেলায় স্থানীয় প্রশাসনের সহায়তায় বাল্য বিবাহ’র হাত থেকে মুক্ত হয়েছে দশম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থী। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার আলীনগর ইউনিয়নের চর চিফলী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। রাতে রাজাপুর ইউনিয়নের মো. সবুজের সাথে ওই শিক্ষার্থীর বিয়ের আয়োজন চলছিল। প্রশাসন খবর পেয়ে বাল্যবিবাহ বন্ধ করে দেয় এবং আঠারো বছরের আগে বিয়ে নয় মর্মে মুচলেকা গ্রহণ করা হয়। স্থানীয় সূত্র জানায়, চরছিফলী গ্রামের কৃষক মো. হাসান ও ফুলরানী বেগমের দশম শ্রেণী পড়–য়া মেয়ের বিয়ের আয়োজন করা হয়।

শিক্ষার্থী মালা বেগম (১৫) মনেজা খাতুন গালর্স স্কুলে লেখাপড়া করে। পরিবার তার বিয়ের আয়োজন করলে স্থানীয় সংবাদকর্মীদের সহায়তায় সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) মো: রুহুল আমীন ঘটনাস্থলে এসে বাল্য বিবাহ বন্ধ করে দেন। এসময় বিয়ের জন্য তৈরি প্যান্ডেল ভেঙ্গে ফেলা হয়।সহকারী কমিশনার (ভুমি) মো: রুহুল আমিন বলেন, আমরা মেয়ের আঠারো বছর না হওয়াতে এ বিয়ে বন্ধ করে দেই। এছাড়া মেয়ের পরিবারের কাছ থেকে মুচলেকা নেয়া হয়েছে যে আঠারো বছরের আগে বিয়ে দেয়া যাবে না। এরপরও যদি ভুয়া কাগজ-পত্র তৈরি করে বিয়ে দেয়ার চেষ্টা করা হয় তাহলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। বাসস


*

*

Top