পুরস্কার পেলেন সাঙ্গাকারা

Sankakara

টিবিটি স্পোর্টস ডেস্ক: কুমার সাঙ্গাকারার জন্য ১১তম বিশ্বকাপই ছিল ওয়ানডে ক্যারিয়ারের বিদায়ী মঞ্চ। কেননা একদিনের ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার বিষয়টি আগেই জানান দিয়ে রেখেছিলেন তিনি। বিদায়ী মঞ্চে সাঙ্গার অভিজ্ঞতাটা হয়েছে দুই ধরনের।

ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সে উজ্জ্বল ছিলেন সাঙ্গাকারা। টানা চার ম্যাচে সেঞ্চুরি করার বিরল রেকর্ড গড়েন তিনি। ৭ ম্যাচ খেলে ৫৪১ রান করেন তিনি। যার গড় ১০৮.২০। ১১তম আসরে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকায় তার অবস্থান ছিল দ্বিতীয়। ৯ ম্যাচে ৫৪৭ রান করে তালিকার শীর্ষে ছিলেন নিউজিল্যান্ডের মার্টিন গাপটিল। তার মানে ব্যক্তি সাঙ্গাকারা স্বমহিমায় উজ্জ্বল। বিদায়বেলায় রাঙিয়ে গেলেন বিশ্বকাপ ক্রিকেটকেও।

তবে শ্রীলঙ্কার দলীয় পারফরম্যান্সে হয়তো হতাশই ছিলেন সাঙ্গাকারা। কোয়ার্টার ফাইনালেই হেরে দেশের বিমান ধরতে হয়েছিল তাদের। তাই নিজের শেষ বিশ্বকাপটা মনের মতো হয়নি সাঙ্গাকারার।

এদিকে গত বছর আরো একটি কীর্তি গড়েছিলেন সাঙ্গা। এক বর্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ২৮৬৮ রান করে সবচেয়ে বেশি রানের রেকর্ডে রিকি পন্টিংকে পেছনে ফেলেন তিনি। এ ছাড়া  ২০১৪ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্গার শিরোপা জয়ের অন্যতম নায়ক ছিলেন তিনি। অসাধারণ পারফর্ম করে ওই বিশ্বকাপের ম্যান অব দ্য ফাইনালও হয়েছিলেন সাঙ্গাকারা।

সব মিলে দুর্দান্ত একটি বছর কেটেছে তার। ভালো খেলার পুরস্কারও পেয়ে গেছেন নগদে। উইজডেন ক্রিকেট অ্যালম্যানাকের ২০১৫ সালের বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের স্বীকৃতি ‘লিডিং ক্রিকেটার অব দ্য ইয়ার’ জিতেছেন  শ্রীলঙ্কার এই ব্যাটিং স্তম্ভ। এর আগে ২০১১ সালেও উইজডেনের সেরা খেলোয়াড়ের স্বীকৃতি পেয়েছিলেন তিনি।

ভারতের বীরেন্দর শেবাগের পর দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসেবে দ্বিতীয়বার উইজডেনের সেরা হওয়ার কীর্তি গড়লেন সাঙ্গাকারা


*

*

Top